118538 lvagmntbgt 1556505602 1583425161369 1650791712105

রবিবারও CBIএর হাজিরা এড়ালেন কেষ্ট


জল্পনাই সত্যি হল। শনিবারের পর রবিবারও সিবিআইয়ের হাজিরা এড়ালেন তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল। এদিন ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় অনুব্রতকে তলব করেন সিবিআইয়ের গোয়েন্দারা। তবে শারীরিক কারণে তাঁর পক্ষে সশরীরে হাজিরা দেওয়া সম্ভব নয় বলে ইমেল মারফৎ সিবিআইকে জানিয়ে দিয়েছেন তাঁর আইনজীবী।

শনিবার গোরু ও কয়লাপাচারকাণ্ডে সিবিআইয়ের হাজিরা এড়ান অনুব্রত। গোয়েন্দা সংস্থাকে চিঠি দিয়ে তিনি জানান, SSKM হাসপাতালের মেডিক্যাল বোর্ড তাঁকে সম্পূর্ণ শয্যাশায়ী থাকতে নির্দেশ দিয়েছে। তার পর রবিবার ফের তাঁকে তলব করে সিবিআই। রবিবার বেলা ২.৩০ মিনিটের মধ্যে বিধাননগরের সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল তাঁকে।

এদিন দুপুরে অনুব্রতর চিনার পার্কের বাসভবনে পৌঁছন তাঁর আইনজীবী। সেখানে দুজনের দীর্ঘ আলোচনা হয়। এর পর অনুব্রতর আইনজীবী সংবাদমাধ্যমকে জানান, শারীরিক অসুস্থতার কারণে রবিবারও সিবিআই দফতরে হাজিরা দিতে পারবেন না অনুব্রত মণ্ডল। চিকিৎসকরা তাঁকে ১ মাস সম্পূর্ণ শয্যাশায়ী থাকতে বলেছেন। অনুব্রত মণ্ডল গতকালের থেকে আজ আরও বেশি অসুস্থ। তাঁর বুকে ব্যাথা রয়েছে। শ্বাসকষ্ট রয়েছে। এই অবস্থায় তাঁর পক্ষে হাজিরা দেওয়া সম্ভব নয়। তবে সিবিআই চাইলে তাঁকে বাড়িতে এসে জেরা করতে পারে। যাবতীয় নথি সহ অনুব্রতর বক্তব্য সিবিআইকে ইমেল করে জানিয়ে দেওয়া হবে।

বলে রাখি, SSKM হাসপাতাল থেকে ছুটি পেতেই শনিবার গোরুপাচারকাণ্ডে অনুব্রতকে তলব করে সিবিআই। তবে সিবিআইয়ের তলবে হাজিরা দেননি তিনি। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, গ্রেফতারি আসন্ন জেনে অনুব্রতর থেকে দূরত্ব তৈরির চেষ্টা করছে তৃণমূল। শনিবার অনুব্রতকে সিবিআইয়ের তলব নিয়ে তৃণমূলের মুখপাত্র চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য বলেন, ‘ওটা অনুব্রত ও সিবিআইয়ের ব্যাপার।’ তৃণমূল সাংসদ দেব বলেন, ‘কেউ নির্দোষ হলে হাজিরা দিতে ভয় পাচ্ছে কেন?’ এবার সিবিআই কী পদক্ষেপ করে সেদিকেই নজর সবার।

 

Comments (0)

Leave a Reply

Your email address will not be published.