cfcf9644 4232 11ec ad0c dd2840806c5c 1637048041194 1650785257654

SSC Recruitment Scam: বিতর্কের মাঝে বড় পদক্ষেপ রাজ্যের, বাতিল ‘ভুয়ো’ নিয়োগ, শুরু নয়া প্রক্রিয়া


এএসসি নিয়োগ নিয়ে বিতর্ক অব্যাহত। এরই মাঝে এবার বড় পদক্ষেপ গ্রহণ করল রাজ্য সরকার। জানা গিয়েছে, গ্রুপ ডি ও নবম-দশমের শিক্ষক হিসেবে ‘ভুয়ো’ নিয়োগ পাওয়া সবার চাকরি বাতিল করা হচ্ছে। পাশাপাশি যোগ্য চাকরিপ্রার্থীদের নতুন করে চাকরিতে নিয়োগ করতে প্রক্রিয়া শুরু করছে রাজ্য সরকার। খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর নির্দেশে এই প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

এদিকে হাই কোর্টে এসএসসি দুর্নীতি মামলার পরবর্তী শুনানির আগেই কীভাবে ভুয়ো চাকরি বাতিল করে নতুনদের নিযুক্ত করা যায়, সেই বিষয়ে আইনি দিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে। নবান্ন তরফে শিক্ষা দফতরকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, আগামী তিনদিনের মধ্যে এই সংক্রান্ত প্রাথমিক সমীক্ষা রিপোর্ট জমা দিতে হবে। ভুয়ো নিয়োগ চিহ্নিত করে যোগ্য ব্যক্তিদের নিয়োগের নীতিগত পদক্ষেপের এটাই প্রথম ধাপ হতে চলেছে।

এদিকে বিচারপতি সুব্রত তালুকদার ও বিচারপতি আনন্দকুমার মুখোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চে এই মামলার আগামী শুনানি ১৩ মে। তার আগেই যোগ্যদের চাকরি দেওয়ার বিষয়ে পদক্ষেপ করতে চাইছে রাজ্য সরকার। এদিকে এর আগে রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সিবিআই হাজিরার ওপর স্থগিতাদেশ দেয় বিচারপতি সুব্রত তালুকদারের ডিভিশন বেঞ্চ। অপরদিকে এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি মামলার তদন্তে নামছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে আগেই সিবিআই এফআইআর করেছিল।

উল্লেখ্য, এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় সিবিআইকে তদন্তভার দেয় কলকাতা হাই কোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চ। নবম ও দশম শ্রেণির শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি মামলায় প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে সিবিআই দফতরে হাজিরার নির্দেশ দেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। পরে সেই নির্দেশের উপর স্থগিতাদেশ জারি করে বিচারপতি সুব্রত তালুকদারের ডিভিশন বেঞ্চ। এই বিতর্কের মাঝে এবার যোগ্য চাকরিপ্রার্থীদের নিয়োগ দিতে তত্পর রাজ্য।

Comments (0)

Leave a Reply

Your email address will not be published.