IMG 20220506 164816 1651838565068 1651838575727

‘বাংলা মানেই খুন, আর কত রক্ত পেলে মমতা শান্ত হবেন!’ কাশীপুর নিয়ে প্রশ্ন লকেটের


কাশীপুরে বিজেপির যুব মোর্চার নেতা অর্জুন চৌরাসিয়ার অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানোতোর। এই বিজেপি নেতার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হলেও এই ঘটনাকে খুন বলেই দাবি করছে বিজেপি। এ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একের পর এক আক্রমণ করলেন বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় এবং অগ্নিমিত্রা পাল। লকেটের কটাক্ষ, ‘বাংলা মানেই যে খুন তা আরও একবার প্রমাণ হয়ে গেল।’

আজ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ উত্তরবঙ্গ থেকে কলকাতায় ফেরার সময় দমদম বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন এই দুই বিজেপি নেত্রী এবং অন্যান্য সমর্থকরা। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে লকেট চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘সেদিন পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে অমিত শাহজি বলেছিলেন বাংলায় গেলে খুন হতে হয়। আজ তা প্রমাণিত হল। বাংলা মানেই খুন! তা আরও একবার প্রমাণ হল। গতকাল অমিত শাহজি বাংলায় পা রাখলেন আর আজ আমাদের বিজেপির একজন কর্মীর মৃতদেহ উদ্ধার হল।’ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সরাসরি আক্রমণ করে লকেট বলেন, ‘আর কত রক্ত পেলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শান্ত হবে আমরা জানতে চাই। ৫৭ জন বিজেপি কর্মী ভোট পরবর্তী হিংসায় খুন হয়েছেন। এখন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর দিকে আঙুল তুলতে লজ্জা করছে না।’ এই ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়েছেন লকেট চট্টোপাধ্যায়।

অন্যদিকে, অগ্নিমিত্রা পালও যুবনেতার মৃত্যুকে খুন বলেই দাবি করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের বিজেপি কর্মীকে খুন করে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়া হচ্ছে। যা ট্রেন্ড যাচ্ছে তাতে তৃণমূল কর্মীরা এসব করেছে। তিনি আত্মহত্যা করলে নিশ্চয়ই বাড়িতে দরজা লাগিয়ে আত্মহত্যা করতেন। কখনই রেলের ভাঙা কোয়ার্টারে গিয়ে আত্মহত্যা করতেন না। এই রাজ্যে আইনের শাসন নেই।’ ফলে এই রাজ্যে ৩৬৫ জারি করা প্রয়োজন বলে মনে করে অগ্নিমিত্রা পাল।

Comments (0)

Leave a Reply

Your email address will not be published.